Mashroof Hossain

শরীর পরিবর্তন: জীবন পরিবর্তনের প্রথম ধাপ

আমার জীবনে যখনই বড়োসড়ো কোন ধাক্কা আসে, ভয়াবহ কোন বিপদের মুখোমুখি হই- সবার আগে কোন জিনিসটা দিয়ে রূখে দাঁড়ানো শুরু করি জানেন? শারীরিক সুস্থতা।

এটা নিয়ে আগেও লেখালেখি করেছি প্রচুর, কিন্তু এটা এমন একটা বিষয় যার গুরুত্ব হাজারটা লেখা লিখেও সম্ভব না। এখানে দেয়া ছবিটা দেখে হয়ত নব্বই জন মানুষ হাসাহাসি করবেন, কিন্তু আমি জানি অন্তত: দশ জন উৎসাহিত হবে শরীরচর্চার পথে। এই দশজনের জন্য আজকের লেবিদ্রুপ/ভ্রুকুটি/হাসবিদ্রুপ/ভ্রুকুটি/হাসাহাসি আমি মাথা পেতে নিলাম।

আমার কাছ থেকে যদি সব কিছু কেড়ে নেয়া হয় শুধুমাত্র মনের জোর আর শারীরিক সুস্থ্যতা বাদে- এই দুটো জিনিস দিয়ে আমি বাকি সব কিছু আবার নতুন করে গড়ে তুলতে পারব বলে বিশ্বাস করি। প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠেই মনে মনে বলি: বেঁচে আছি তো? শরীরটা ঠিক আছে? যাক, তাহলে সব ঠিক আছে।

আজই কোন একটা হাসপাতালে গিয়ে দেখুন, অসুস্থ মানুষের কত কষ্ট- তখনই বুঝতে পারবেন সুসাস্থ্য কতটা জরুরী।

শরীর গঠনের দিক দিয়ে আমি এন্ডোমর্ফ, যা খাই সেটাই সাথে সাথে গায়ে লেগে যায়। এদিকে আমি খেতে প্রচন্ড ভালোবাসি। তাও সাধারণ খাবার নয়, মিষ্টি জিনিস আর রেড মিট। মাত্রাজ্ঞানও ঠিক রাখিনা।

ফলাফল? বাম পাশের ছবি।

কিন্তু এভাবে তো চলতে দেয়া যায়না, তাইনা? এরকম বীভৎস রকমের মোটা হলে জীবনে যা যা করার কথা তার দশ ভাগও তো করতে পারবো না- কিছু একটা তো করা দরকার!

বান্দরবানে হাইফাই জিম নেই, সাপ্লিমেন্টেশন পাওয়া যায়না, শরীরচর্চার খুব একটা চলনও নেই।

তবে একটা জিনিস সবার আছে, যা দিয়ে এসব সীমাবদ্ধতা দূর করা যায়। আমাদের দু কানের ভেতরে যে পদার্থ আছে সেটি- আমাদের মস্তিষ্ক, যার জোরে আমরা রাজত্ব করি।

শরীর তথা জীবন পরিবর্তনের প্রথম ধাপ আসবে আপনার মাথায়। শুরুতেই সিদ্ধান্ত নেবেন- আই উইল ডু ইট নো ম্যাটার হোয়াট।

এ লেখাটির উদ্দেশ্য আপনাকে অলিম্পিক এ্যাথলিট বানানো নয়, ওটার জন্য প্রফেশনালরা আছেন। আমি চাই আমার মত আনাড়ী যাঁরা আছেন তাঁরাও যেন শরীরটাকে একটা শেইপে নিয়ে আসতে সচেষ্ট হন। কাজেই একদম বেসিক ধাপ গুলো বলছি:

1. Take the decision that you will make your body fit. Your body is as holy as a temple, stop treating it like a dustbin.

2. Eat clean- this is 90% of the game. Remove all junk food, sugar, simple carbohydrate. Anything that your common sense says to be bad for health- kich it out of your system. Meaning, no soft drinks, no sweets, no burger, no french fries- nothing.

3. Drink plenty of water- at least 8-12 glasses a day.

4. Do any kind of physical exercise at least 20-45 minutes a day. Do High Intensity Interval Training(HIIT), check it on youtube. You must sweat.

5. Remove stress from your mind. Do practice mindfulness meditation at least 5-10 minutes a day. Those who are religious you can use prayer to cool your mind.

দিনে বিশ থেকে ত্রিশ মিনিট গা ঘামানোর মত অসংখ্য ব্যায়াম ইউটিউবে আছে, ঘরে বসেই করা যায়। মেডিটেশন বা প্রার্থনা করতেও টাকা লাগেনা। আর উল্টোপাল্টা খাবার বাদ দিলে তো খরচ আরো কমে।

উপরে যে ধাপ গুলো লিখলাম এগুলো আমার আবিষ্কার না, নতুন কিছুও না। সিরিয়াস রকমের অসুস্থ নন এমন যে কেউ এগুলো অনুসরণ করতে পারেন যদি তিনি ইচ্ছা করেন। Remember, its all in the mind!

আমি জীবনকে পরিপূর্ণভাবে উপভোগ করতে চাই। যে কাজটা হাতে নিয়েছি সেটা সর্বশক্তিতে সফল করতে চাই। বজ্রের মত সশব্দে শত্রুকে ছিন্নভিন্ন করে দিতে চাই। প্রিয়তমার সাথে প্রবল রতিরঙ্গে আকাশ পাতাল মর্ত পরমানন্দে প্রকম্পিত করে তুলতে চাই। এত সব কিছু পেতে সবার প্রথমে যেটি দরকার তা হচ্ছে শক্তপোক্ত একটা শরীর।

সে লক্ষ্যেই যেটুকু সামান্য সাধ্য আছে সেটুকু নিয়ে সুদূর পার্বত্য বান্দরবানে বসে আমি লড়ে যাচ্ছি। বা পাশের কুৎসিৎ মাংসপিণ্ড আমি হাপিশ করে দিয়েছি, বছর দুয়েকের ভেতরে স্টেরয়েড ছাড়াই সিক্স প্যাক বানাবো ইনশাল্লাহ।

রোজার মধ্যে এই কাজটা শুরু করা আরো সোজা। সেহরি আর ইফতার ছাড়া খাবার ঝামেলা নেই, ইফতারের পর থেকে সময় বের করে বিশ মিনিট ব্যায়াম করে ঘাম ঝরানো যায় ইচ্ছা করলেই। আমি অবশ্য ইফতারের আগে আগেই করি, একটু কষ্ট হলেও খুবই কাজ দেয়।

আপনি শুরু করছেন কবে? আজকে না কেন?

(বাম পাশের ছবিগুলো জাপান থাকতে, ওজন একশ কেজির উপরে। ডান পাশের ছবিগুলো গত সপ্তাহের, ওজন পঁচাশি কেজি। দেশে এসে পচানব্বই থেকে পচাশি কেজিতে সময় লেগেছে দুই মাস বিশ দিনের মত)

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here