রোযায় OMAD

0
4524

যারা OMAD করছেন অল্প কিছুদিন/অনেকদিন ধরে অথবা শুরু করবেন পরিকল্পনা করছেন, তারা রোযা নিয়ে একটু দ্বিধা বিভক্তি অনুভব করছেন আমি বুঝতে পারছি। কারন তাদের অনেকেরই সম্ভবত রোযায় OMAD করার কোন অভিজ্ঞতা নেই তাও এই ৩৬+ ডিগ্রী সেলসিয়াস গরমে। আমি এই গ্রুপে আছি প্রায় দেড় মাস।

যদিও অভিজ্ঞতা কম দিনের তবু আজকের এই পোস্টটা দেয়ার উদ্দেশ্য আমার ৯ টি OMAD + রোযার অভিজ্ঞতা শেয়ার করা। OMAD + রোযা একসাথে করতে প্রথমে আমিও একটু টেনশন করেছিলাম তবে কিছু জিনিস মিলিয়ে বুঝে নিলে তেমন কঠিন নয়। প্রথমেই কিছু ব্যাপার বলে নিচ্ছি,

* আমি OMAD পারসোনালি খুব পছন্দ করি। কারন আমি অল্প অল্প করে সারাদিন খেতে পারি না। আমার meal time(ডায়েট না করলে) দিনে ৩/৪ টা সাধারনত। ওই সময়গুলোতে পেট ভরে না খেলে আমার ভাল লাগে না। কোন কাজে মন বসে না, তাই খালি খাবারের চিন্তা করি আর বেশিদিন তাই কোন ডায়েট ফলো করা হয় না।

* আমার গ্যাস্ট্রিক বা আলসারের সমস্যাও নেই আল্লাহর রহমতে আর আমি না খেয়ে দীর্ঘ সময় থাকতে পারি। তাই OMAD করছি এবং আমার বেশ উপকার ও হচ্ছে।

* তাই এই পোস্টের মাধ্যমে আমি কাউকে নিজের শরীর বা সহ্যশক্তির বাইরে কিছু করতে উৎসাহিত করছি বলে মনে করবেন না। 🙂

* আমি OMAD + রোযা রেখে মাঝে মাঝে বাসায় ভারী কাজ করেছি এবং বিশ্রামের সুযোগ পেয়েছি। তাই যারা অফিস করেন অথবা ভারী কাজ করে বিশ্রামের সুযোগ পান না তারা অবশ্যই নিজের পরিস্থিতি বুঝে OMAD + রোযা করবেন

আমার অভিজ্ঞতা : আমি এই ১৪ দিন কার্বোহাইড্রেট ফ্রি OMAD করেছি। তাই আমার মেনুতে কোন ভাত, রুটি/পাউরুটি নেই। আপনারা আপনাদের মত ক্যালরি হিসেব করে
ভাত, রুটি/পাউরুটি যোগ করে নেবেন।

OMAD : ১৪ দিন
OMAD + রোযা : ৯ দিন
(৫টি একটানা ৪টি বিরতি দিয়ে)
খাবার সময় : ৬:৩৫ – ৬:৪৫ (১ঘন্টা)
মেনু (ইফতার):
১ পিস গ্রিল কোয়ার্টার চিকেন ৩০০ ক্যাল
২টি সিদ্ধ ডিম – ১৪০ ক্যাল
১ টি সাগর কলা – ৯০ ক্যাল
১ গ্লাস ওভাল্টিন গরুর দুধ (দেড় চামচ চিনি) – ২৫০ ক্যাল
Workout : শুধু হালকা ইয়োগা

Weight loss : ৩ কেজি (কয়েকদিনের অনিয়মে এখন ১ কেজি বেড়ে গেছে) :p

মেনু (সেহরি): শুধু পানি

বাকি সময় আমি প্রচুর পানি খেয়েছি।
(এই সিস্টেমের বাইরে অনিয়ম ঐ ১৪ দিন খুবই কম করা হয়েছে)

এখন যারা রোযায় OMAD করতে ভয় পাচ্ছেন তাদের জন্য কিছুটা উৎসাহ

* যারা ডায়েট করছেন অলরেডি এবং নিয়ত করেছেন চালিয়ে যাবেন তারা তো নিশ্চিত রুপে ইফতারে ভাজা পোড়া বাদ দিচ্ছেন তাই না? ইফতারটা তাহলে OMAD অনুসারে সাজিয়ে নিন। ১২০০ ক্যালরি কিন্তু কম নয় আপু ভাইয়ারা। ইফতার কিন্তু পেট ভরে করলেও কখনও কখনও ১২০০ ক্যালরি শেষ হয় না।

* তারাবির ২০ রাকাত নামাজটাকে ওয়ার্কআউট হিসেবে ধরে নিন।

* আর ৮টায় ইফতার শেষ করে আমার মনে হয় খুব কম মানুষই ঘুমানোর আগে আবার ডিনার করে। তাই ডিনারটাও বাদ গেল।

* রইল শুধু সেহরী। যারা অলরেডী OMAD করছেন তারা তো ২৪ ঘন্টায় একবার খেয়ে অভ্যাস করেই ফেলেছেন তাদের জন্য আমার মনে হয় না সেহরি বাদ দেওয়াটা খুব বেশি কষ্ট হবে। আর যারা OMAD শুরু করেন নি তাদের শুধু সাহস করা বাকি। 🙂

* নরমাল OMAD আর রোযা রেখে OMAD এর পার্থক্য একটাই, নরমাল OMAD এ পানি খাওয়া যায়। রোযা ভেংগে তাই প্রচুর পানি পান করুন। আমাদের সবার রোযা রাখার অভ্যাস আছে। সাথে শুধুই একবেলা খাওয়ার অভ্যাস যোগ করে দিলেই রোযা + OMAD হয়ে যাবে।

সবশেষে সবাইকে মাহে রমযান। দোয়া রইল সবাই যেন নিজের নামের পাশ থেকে মোটু/মুটকি উপাধি সরিয়ে ফেলতে পারেন।

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
172

পাঠকের মতামতঃ