ডায়েটে গ্রহণীয় বর্জনীয়

0
1683

অনেস্ট লাইজ
আমার আম্মার বয়স ৬৭ বছর, কাধের দিকে হাড় ক্ষয় ধরা পড়েছে কিছুদিন আগে, ডায়েবেটিজ একেবারেই কম। ওষুধ খাইতে হয় না।

ঢাকা আসলে ঘর থেকে বের ই হতে চায় না। এবার ঢাকা আসার পর অনেক কষ্টে বাটা জুতার দোকানে নিয়ে গেলাম হাটার জুতা কিনে দেবার জন্য, আম্মা মাশাল্লা দামি ২ টা জুতা পছন্দ করছে, একটা সকালে হাটার জন্য আরেক টা এদিক সেদিক যাবার জন্য। উনার ২ টা জুতাই পছন্দ হয়েছিল। আমাকে জিজ্ঞাসা করল কত টাকা? আমি কইলাম ৫০০ করে ( আসলে একটা ১৮০০ আরেকটা ১৯০০) বলল তাহলে নে 🙂 আমি হাসিমুখে কিনে ফেললাম।

আম্মার জন্য কাঠ বাদাম কিনবো, আম্মাকে ফোন দিলাম, আপনার আগের বাদাম গুলা শেষ হয়ে গেছে? হুম
তাহলে আরেক কেজি কিনে দিবো? দাম অনেক কমে গেছে, মাত্র ৪০০
তাহলে ১ কেজি কিনে দিছ।।
৭০০ টাকা দিয়ে ১ কেজি কাঠ বাদাম কিনে দিলাম 🙂

আমার মা আমাকে তার অসুখ বিসুখ হলে আজ পর্যন্ত কখন বলে নাই, আমি প্রতিদিন ফোন যেহেতু করি আমি কথা বললেই বুঝতে পারি, যে উনি অসুস্থ কিনা, বুঝলে আমি আমার বোন দের কে ফোন দি যেন আম্মাকে ডাক্তার দেখায় বা তারা যেন বাড়িতে যায়।

আমার অসুখ বিসুখ হলেও আমি কখন আম্মাকে বলি না, কেনকি উনার টেনশান হবে, তাই আমি এমনভাবে চলি যেন কখন অসুস্থ্য না হই। অন্তত মা কে এভাবেও প্যারা দেওয়া থেকে মুক্তি দিতে পারি।
আর নিজে উচ্চতা উনুযায়ী সঠিক ওজনে থেকে, দৈনিক এক্সারসাইজ করে, স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে শরীরকে সুস্থ্য রাখার মাধ্যমে নিজের ও পরিবারের অন্য মানুষদের সুখে রাখাও এক ধরনের ভালবাসা 🙂

এক্সারসাইজ করেন, হাটাহাটি করেন, স্বাস্থ্যকর খাবার খান, ভাল ঘুম দিন, বেশি করে পানি খান, নেভার সে নো টু এনি ভেজালবিহীন ফ্রুটস, ভাল থাকেন, জানুন, বুঝুন, মানুন, ভাল থাকেন। 🙂 🙂

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
2

পাঠকের মতামতঃ